1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
অবশেষে বয়স্ক ভাতার কার্ড পেলেন ফাতেমা বেগম।জনতার বার্তা - দৈনিক জনতার বার্তা
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৮:৫৫ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
হাইমচরে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত সাগরিকা বিসিক শিল্প এলাকার একটি হোমল্যান্ড কেমিক্যাল গ্রিস কারখানায় শর্ট সার্কিট থেকে আগুন! যমুনা অয়েল কোম্পানি, ডেনমার্ক এম্বাসি, বি আরটিসি চাকরি নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক মামুন ও রহিমঃ! হাইমচরে চেয়ারম্যান পদে ১১, মেম্বার পদে ৫৭, সংরক্ষিত ২১ জনের মনোনয়ন পত্র জমা! গাইবান্ধায় জমি সংত্রান্ত ব‍্যাপারে মারপিট বাড়ীঘর ভাংচুর, থানায় অভিযোগ! ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুরে পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএমপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও চিকিৎসার দাবীতে যুবদলের বিক্ষোভ! হাইমচরে মেম্বার প্রার্থী জসিম উদ্দিন ভূইয়ার নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত! হাইমচরে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সাহাউদ্দিন টিটুর মনোনয়নপত্র জমা!

অবশেষে বয়স্ক ভাতার কার্ড পেলেন ফাতেমা বেগম।জনতার বার্তা

মো:রফিকুল
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ৬ জুন, ২০২১

মো:রফিকুল,বিভাগীয় স্টাফ রিপোর্টার

অবশেষে বয়স্ক ভাতার কার্ড পেলেন নীলফামারীর জলঢাকার অসহায় ফাতেমা বেগম (৬৮)।

রবিবার(০৬ জুন)ফাতেমা বেগমের ভাগ্যে জোটেনি কোন ভাতা’ শিরোনামে অবজারভারে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

যা উপজেলা প্রতিনিধি হাসানুজ্জামান সিদ্দিকী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে তার ব্যক্তিগত আইডিতে শেয়ার করেন।
বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহবুব হাসানের নজরে এলে তিনি তাৎক্ষণিক ভাবে হাসানুজ্জামান সিদ্দিকীকে ফোন করে ফাতেমাসহ তাকে দেখা করতে বলেন।
তার ইউএনও’র কার্যালয়ে গেলে তিনি সমাজসেবা কর্মকর্তার সহযোগীতায় ফাতেমা বেগমের হাতে হাতে বয়স্ক ভাতার কার্ড তুলে দেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদ হোসেন রুবেল, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা চঞ্চল কুমার ভৌমিক, সমাজ সেবা কর্মকর্তা শাহ মাহমুদুল হক, বিএমআই কলেজের অধ্যক্ষ আবেদ আলী ও সংবাদকর্মীসহ নেতৃবৃন্দ।

বয়স্ক ভাতার কার্ড হাতে পেয়ে ফাতেমা বেগম খুশিতে কান্নাজাড়িত কণ্ঠে বলেন, ‘আমার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত আমি সরকারি সকল সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়েছি। চেয়ারম্যান, মেম্বাররা আমার দিকে দেখেন নি। সাংবাদিক হাসানের সহযোগিতায় ইউএনও স্যার আমাকে ডেকে আমার দুঃখের কথা শুনে আজ আমার হাতে একটি বয়স্ক ভাতার কার্ড তুলে দিয়ে আমার যে উপকার করলেন তা আমি জীবনেও ভুলবো না। আর স্যারের মতো মানুষ হয় না। দোয়া করি আল্লাহ স্যারকে যেন ভালো রাখেন।’

ইউএনও বলেন, আমি এক অসহায় বিধবা মহিলার হাতে একটি বয়স্ক ভাতার কার্ড তুলে দিয়ে তার পাশে দাঁড়াতে পেরে নিজের দায়িত্ব ও কর্তব্য মনে করছি। আনন্দিতও হয়েছি।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম