1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
গাইবান্ধায় স্ত্রীকে খুন করে, ফাঁসিতে ঝুঁলিয়ে রেখে স্বামী পলাতক! - দৈনিক জনতার বার্তা
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৯:২৬ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ
হাইমচরে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়া অনুষ্ঠিত সাগরিকা বিসিক শিল্প এলাকার একটি হোমল্যান্ড কেমিক্যাল গ্রিস কারখানায় শর্ট সার্কিট থেকে আগুন! যমুনা অয়েল কোম্পানি, ডেনমার্ক এম্বাসি, বি আরটিসি চাকরি নামে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে প্রতারক মামুন ও রহিমঃ! হাইমচরে চেয়ারম্যান পদে ১১, মেম্বার পদে ৫৭, সংরক্ষিত ২১ জনের মনোনয়ন পত্র জমা! গাইবান্ধায় জমি সংত্রান্ত ব‍্যাপারে মারপিট বাড়ীঘর ভাংচুর, থানায় অভিযোগ! ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুরে পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএমপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও চিকিৎসার দাবীতে যুবদলের বিক্ষোভ! হাইমচরে মেম্বার প্রার্থী জসিম উদ্দিন ভূইয়ার নির্বাচনী মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত! হাইমচরে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সাহাউদ্দিন টিটুর মনোনয়নপত্র জমা!

গাইবান্ধায় স্ত্রীকে খুন করে, ফাঁসিতে ঝুঁলিয়ে রেখে স্বামী পলাতক!

মোঃ রাতুল মিয়া, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : বুধবার, ১০ নভেম্বর, ২০২১

মোঃ রাতুল মিয়া, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ

গাইবান্ধা সদর উপজেলার উত্তর খোলাহাটিতে রত্না বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে স্বামী ফজলে রাব্বীর বিরুদ্ধে। স্বজনদের অভিযোগ রাতভোর নির্যাতন করে স্ত্রী রত্নাকে হত্যা করে নিজ ঘরে রেখে দিয়েছিল স্বামী। পরে সোমবার (৮ নভেম্বর) সকাল সারে ১১টার দিকে উপজেলার খোলাহাটী ইউনিয়নের উত্তর খোলাহাটী গ্রাম থেকে রত্নার মরদেহ উদ্ধার করে গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশ।

স্থানীয়রা জানায়,গতকাল রবিবার সকালে ফজলে রাব্বী তার নয় বছরের ছেলেকে মারধোর করতে থাকে। এসময় স্ত্রী রতনা বেগম সন্তানকে মারতে বাঁধা দেয়। এ নিয়ে তাদের মাঝে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে ফজলে রাব্বী রাতে তার স্ত্রীকে মারধোর করে। সোমবার সকালে রতনার মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে ঘটনান্থল থেকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।

রত্না গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামের মৃত জাহাঙ্গীর আলমের মেয়ে রত্না বগমের সাথে সদর উপজেলার উত্তর খোলাহাটী গ্রামের আব্দুল লতিফ মিস্ত্রীর ছেলে ফজলে রাব্বীর সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। সংসার জীবনে তাদের নয় বছর ও তিন বছরের দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।

এদিকে রত্না বেগমের বোন জাহানারা বেগম ও ঝর্ণা বেগম বলেন, বিয়ের পর থেকে বিভিন্ন সময় আমার বোনের ওপর শারীরিক নির্যাতন সহ নানা নির্যাতন করে আসছিল স্বামী ফজলে রাব্বী। এর আগে রত্না আপাকে অমানবিক শারীরিক নির্যাতন করেন পরে তার কোমর সহ এক পা ভেঙে দেয় তারপরও স্থানীয়রা কয়েকটি গ্রাম শালিস করেন। এ নিয়ে একটি মামলাও হয়েছিলো। কিন্তু তার কিছুদিন পর আবার নির্যাতন করে রাব্বী।

মৃতঃ রত্না বেগমের মা গোলেজা বেগম বলেনঃ আমার মেয়েকে রাতে হত্যা করে ঘরে মরদেহ রেখে দিয়েছে রাব্বি। আমি এই হত্যাকারীর ফাঁসী চাই।

এদিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) আব্দুর রউফ বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসার জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। তবে পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম