1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
বান্দরবান বালাঘাটা শ্রী শ্রী কেন্দ্রীয় রক্ষা কালি মন্দির প্রাঙ্গণে শ্রী শ্রী বাবা লোকনাথ ব্রহ্মচারী ২৯১তম আবির্ভাব দিবস উদযাপিত হয়েছে! জনতার বার্তা - দৈনিক জনতার বার্তা
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৯:০৭ পূর্বাহ্ন

বান্দরবান বালাঘাটা শ্রী শ্রী কেন্দ্রীয় রক্ষা কালি মন্দির প্রাঙ্গণে শ্রী শ্রী বাবা লোকনাথ ব্রহ্মচারী ২৯১তম আবির্ভাব দিবস উদযাপিত হয়েছে! জনতার বার্তা

শচীন চক্র বর্তী, বান্দরবান জেলা প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

শচীন চক্র বর্তী, বান্দরবান জেলা প্রতিনিধিঃ

আজ ৪ সেপ্টেম্বর রোজ শনিবার বান্দরবান কেন্দ্রীয় রক্ষা কালি মন্দিরে লোকনাথ সেবা সংঘের আয়োজনে শ্রী শ্রী বাবা লোকনাথ এর ২৯১তম আবির্ভাব দিবস পালিত হয়েছে।

করোনার এই দুঃসময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পালন করা হয় এই ধর্মীয় অনুষ্ঠান।

উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বালাঘাটা শ্রী শ্রী কেন্দ্রীয় রক্ষা কালি মন্দিরে সভাপতি শ্রী প্রিয়তোষ চৌধুরী, সাধারণত সম্পাদক শ্রী সুবাস কান্তি বসু, ডাঃ শ্রী ললিত তালুকদার, শ্রী নিত্যরঞ্জন দাশ, লোকনাথ সেবা সংঘের সভাপতি শ্রী নয়ন দাশ, সাধারণ সম্পাদক শ্রী শ্রাবণ দাস, উপদেষ্টা শ্রী প্রসেনজিৎ দাস,বিশ্বজিৎ দে ডাবলু, হরিকমল দে,সম্রাট চক্র বর্তী সহ লোকনাথ সেবা সংঘের সকল সদস্য বৃন্দ।

লোকনাথ ব্রহ্মচারী (জন্ম : ১৭৩০ – মৃত্যু : ১৮৯০)

বাবা_লোকনাথ শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমীতে ১৭৩০ খ্রিষ্টাব্দের ৩১ আগস্ট (১৮ ভাদ্র, ১১৩৭ বঙ্গাব্দ) কলকাতা থেকে কিছু দূরে ২৪ পরগণার কচুয়া গ্রামে একটি ব্রাহ্মণ পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম রামনারায়ণ ঘোষাল এবং মাতা কমলাদেবী। তিনি ছিলেন তার বাবা-মায়ের ৪র্থ পুত্র।


বাবা লোকনাথের পিতার ইচ্ছা ছিলো তিনি ব্রহ্মচারী হবেন। কিন্তু মা তাঁর পুত্রকে দূরে যেতে দিতে চাইছিলেন না। অবশেষে উপনয়নের জন্য বাবা লোকনাথ আচার্য গাঙ্গুলীর শিষ্যত্ব লাভ করেন। একই সঙ্গে তাঁর প্রিয় সখা বেণীমাধব চক্রবর্তী ভগবান গাঙ্গুলীর শিষ্যত্ব লাভ করেন। দীক্ষাগুরু হিসেবে ভগবান গাঙ্গুলী/ভগবান চন্দ্র গঙ্গোপাধ্যায় কয়েক বছর দেশে বাস করে লোকনাথ ও বেণীমাধব বন্দ্যোপাধ্যায় নামে শিষ্যদ্বয়কে সাথে নিয়ে কালীঘাটে আসেন। পরে ভগবান গাঙ্গুলী/ভগবান চন্দ্র গঙ্গোপাধ্যায় তাঁদেরকে নিয়ে বারাণসীতে গমন করে দেহত্যাগ করার পূর্বে ত্রৈলঙ্গস্বামীর হাতে ভার দিয়ে যান। তখন বাবা লোকনাথ এবং বন্ধু বেণীমাধবের বয়স ছিলো ৯০ বছর। ত্রৈলঙ্গস্বামী মূলত পণ্ডিত হিতলাল মিশ্র। সেখানে স্বামীজীর সাথে তাঁরা কিছুকাল যোগশিক্ষা করে ভ্রমণে বের হন।

বাবা লোকনাথ ১৬০ বছর বয়সে বাংলাদেশের নারায়ণগন্জের সোনারগাঁওয়ের বারদিতে দেহ রাখেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে বাবা লোকনাথ এর জীবনী পাঠ, গীতাপাঠ, ও চন্ডী পাঠ দিয়ে উক্ত অনুষ্ঠান কার্যক্রম শুরু হয়। গীতাপাঠ পরিবেশনায় সার্বিক সহযোগিতা করেন গীতাপাঠক শ্রী কৃষ্ণ দাস ও বালাঘাটা শ্রী শ্রী কেন্দ্রীয় রক্ষা কালি মন্দিরের গীতা স্কুলের শিক্ষার্থী বৃন্দ।

এই করোনা মহামারী থেকে বিশ্ববাসী যাতে মুক্ত হয় এর জন্য বিশেষ প্রার্থনা ও করা হয়েছে।

সভাপতির ভক্তবে শ্রী নয়ন দাশ বলেন। আজকের এই পূর্ন্যময় দিনে বাবা লোকনাথ এই ধরাধামে আসেন,আজ বাবার ২৯১ তম আবির্ভাব দিবস উপলক্ষে আমার লোকনাথ সেবা সংঘের উদ্যোগে প্রতি বছরের নেয়ায় এই বার ও বাবার আবির্ভাব দিবস পালন করছি। আমার করোনা মহামারী পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ভক্তবৃন্দকে অংগ্রহনের সুযোগ দিয়েছি।

তিনি আরো বলেন এই করোনা মহামারী পরিস্থিতি অনেক লোক মারা গেছে আমার তাদের আত্মা প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে যাতে আর কারও প্রাণ না হারায় সেই জন্য ভগবান কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করি যাতে বিশ্ববাসী ঠিক আগে মতো জীবন যাপন করতে পারেন। সকলের মঙ্গল কামনা করে উক্ত অনুষ্ঠান সমাপ্তি ঘোষণা করছি।,সকলকে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম