1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
বার্সাকে বিদায় মেসির, বিবৃতিতে সরকারিভাবে বার্তা ক্লাবের! জনতার বার্তা - দৈনিক জনতার বার্তা
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ১১:৩২ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ

বার্সাকে বিদায় মেসির, বিবৃতিতে সরকারিভাবে বার্তা ক্লাবের! জনতার বার্তা

খেলাধূলা ডেস্কঃ
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট, ২০২১

খেলাধুলা ডেস্কঃ

১৯ বছরের দীর্ঘ সম্পর্কের শেষমেশ ইতি। আর বার্সেলোনায় ফিরছেন না লিওনেল মেসি। কাতালান ক্লাবের পক্ষ থেকে সরকারিভাবে বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হল যে খবর। আর্জেন্তাইন মেগাস্টারের দলবদলের এই খবর ফুটবলবিশ্বে কার্যত বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতোই। কারণ, কিছুদিন আগেই যাবতীয় জল্পনা-কল্পনা কাটিয়ে আগামী পাঁচবছর বার্সাতেই মেসি থাকছেন বলেই জানানো হয়েছিল। এদিন দুই পক্ষের সেই চুক্তিতে সই করার কথা ছিল।

চুক্তির টেবিলেই বাঁধে বিপত্তি। স্প্যানিশ লিগ তথা লা লিগার নিয়ম অনুযায়ী আর্থিক বাধ্যবাধকতায় তৈরি হয় জটিলতা। যারপরই কার্যত একশো আশি ডিগ্রি ঘুরে উল্টোপথ ধরতে বাধ্য হন সদ্য আর্জেন্তিনার জার্সিতে কোপা আমেরিকা জিতে আন্তর্জাতিক ট্রফিখরা কাটানো মেসি। বার্সেলোনার পক্ষ থেকে সরকারিভাবে দেওয়া বার্তাতে জানানো হয়েছে, ‘লিওনেল মেসি আর বার্সেলোনা ক্লাবে থাকছেন না। শেষপর্যন্ত ক্লাব ও মেসির ইচ্ছামতো চুক্তি সই না হওয়াতে দুই পক্ষই প্রবলভাবে ব্যথিত। ক্লাবের জন্য লিওনেল মেসি যা করেছে তা বার্সেলোনার ইতিহাসে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। মেসির ব্যক্তিগত ও পেশাদারি ভবিষ্যত জীবনের জন্য ক্লাবের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা।’

গত কয়েকবছর ধরেই বার্সেলোনার ক্লাব কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দলগঠন থেকে দল পরিচালনা বিভিন্ন ইস্যুতে বারবার লিওনেল মেসির সংঘাত চলে এসেছিল প্রকাশ্যে। যে জন্য ছোটবেলার ক্লাবে নতুন করে দীর্ঘমেয়াদি চুক্তি করছিলেন না মেসি। চলতি বছরের জুনে মেসির বার্সার সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়েছে। যার পরই ফ্রি-এজেন্ট মেসিকে ঘিরে জল্পনায় মশগুল ছিল ফুটবলবিশ্ব। যদিও বার্সেলোনা সমর্থকদের সব শঙ্কা কাটানোর বার্তা দিয়ে পাঁচ বছর আরও বার্সায় খেলার বার্তা দিয়েই কোপা খেলতে গিয়েছিলেন মেসি। কিন্তু ফিরে এসে চুক্তির মাঝে বাঁধল বিপত্তি। স্প্যানিশ মিডিয়ার খবর, একেই বর্তমান বার্সা দল নিয়ে খুব একটা খুশি ছিলেন না মেসি। তার ওপর স্প্যানিশ লিগের নতুন আর্থিক বাধ্যবাধকতার জেরে আলোচনা কার্যত ‘পয়েন্ট অফ নো রির্টানে পৌঁছে যায়’। এমনিতেই আগে কঠিন স্প্যানিশ করনীতির প্যাঁচে পড়ে করফাঁকির ইস্যু নিয়ে ভুগতে হয়েছে মেসিকে। তাই সেই বিড়ম্বনার বহর আর হয়তো ক্লাবের ভালোবাসার টানে টেনে নিয়ে যেতে চাইলেন না ফুটবলের রাজপুত্র।

মেসি ও বার্সেলোনার বিচ্ছেদ পাকাপাকি হয়ে যাওয়ার পরই যে প্রশ্নটা ওঠে, তাহলে এবার কোথায় হচ্ছে লিও-র নতুন ঠিকানা। অর্থের ঝুলি নিয়ে যে অনেক ক্লাবই ঝাঁপাবে এবং আগামী কয়েকদিন নতুন করে ফের ফুটবলবিশ্বে চর্চার বিষয় হতে চলে মেসির গন্তব্য, তা বলাই যায়। এবার দেখার, আগের জল্পনার সময় বারবার জোরালোভাবে উঠে আসা ম্যাঞ্চেস্টার সিটির পথেই তিনি পা বাড়ান কি না। প্রাক্তন গুরু পেপ গুয়ার্দিওলার উপস্থিতিই যে জল্পনার ক্ষেত্রে সবথেকে বড় ফ্যাক্টর। নতুন আস্তানার উত্তর দিক সময়। কৈশোর-যৌবনের তপোবন ন্যু ক্যাম্পে আর ঘরের ছেলে ফিরছে না। এটাই আপাতত ঘোর বাস্তব।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম