1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
বিনাবৃষ্টির বজ্রপাতে ১৯ জন আহত - দৈনিক জনতার বার্তা
বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:০৬ পূর্বাহ্ন

বিনাবৃষ্টির বজ্রপাতে ১৯ জন আহত

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ১৫ জুলাই, ২০২২

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলায় বিনাবৃষ্টির বজ্রপাতে ১৯ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ১৮ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার বিকালে উপজেলার জাগীর পুলিশ ক্যাম্প এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ব্যক্তিরা হলেন- আবদুল লতিফ (৬০), ইসমাইল হোসেন (১৫), আলমগীর হোসেন (৫০), আরিফ হোসেন (২৯), ওয়াসিম হোসেন (২০), আজিজুল হাকিম (৩৫), মোখলেছ মিয়া (৬২), আবদুর রাজ্জাক (৫০), শামীম হোসেন (৩৫), ফাহিম হোসেন (১৭), জাহিদুল ইসলাম (৪০), সজীব মিয়া (২০), রাজিব হোসেন (২০), ফারুক হোসেন (৩০), শিবু মিয়া (২০), বিপ্লব মিয়া (২০), লুৎফর রহমান (৩৫) এবং রইজ উদ্দিন (১৮)। তাদের বাড়ি জেলা সদর, সাটুরিয়া ও সিঙ্গাইর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। আহত অবস্থায় তাদের জেলা সদরের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া বাদশা মিয়া (৪৫) নামে একজন হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

আহত ব্যক্তি, প্রত্যক্ষদর্শী এবং স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, জেলা সদরের জাগীর ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে শুক্রবার বিকালে ইউসুফ আলী গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের খেলা শুরু হওয়ার কথা ছিল। জাগীর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেনের বাবা প্রয়াত ইউসুফ আলীর নামে এই ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়।

বিকালে খেলা দেখতে আশপাশের বিভিন্ন এলাকায় থেকে দর্শকেরা ওই মাঠে যাচ্ছিলেন। বিকাল সোয়া ৪টার দিকে মাঠের অদূরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের জাগীর পুলিশ ক্যাম্প এলাকায় আকস্মিক বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। এতে খেলা দেখতে যাওয়ার সময় ওই ১৯ জন আহত হন। তাদের মধ্যে তিনজনের শরীরে সামান্য ঝলসে যায়। এছাড়া বাকিরা বজ্রপাতে আহত হন। এরপর স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

পরে বিকাল ৫টার দিকে মাঠে খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলা শেষে ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন হাসপাতালে আহতদের দেখতে যান। তিনি বলেন, বজ্রপাতের সময় কোনো বৃষ্টিপাত হচ্ছিল না। আকস্মিক এ ঘটনায় আহত পরিবারের মধ্যে কিছুটা শঙ্কা কাজ করছে।

বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, আহত ব্যক্তিদের চিকিৎসা চলছে। তাদেরকে শিরায় স্যালাইন দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বিভিন্ন ওষুধ দেওয়া হয়েছে।

হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সৈয়দা শামীমা আক্তার বলেন, বজ্রপাতে আহত ব্যক্তিদের মধ্যে তিনজনের শরীরের সামান্য অংশ ঝলসে গেছে।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম