1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
রাষ্ট্রপতির সাথে ইসলামী ফ্রন্টের সংলাপ অনুষ্ঠিত। স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠনে ৪ প্রস্তাবনা পেশ - দৈনিক জনতার বার্তা
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন

রাষ্ট্রপতির সাথে ইসলামী ফ্রন্টের সংলাপ অনুষ্ঠিত। স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠনে ৪ প্রস্তাবনা পেশ

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ জানুয়ারী, ২০২২

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ– গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদের আলোকে নির্বাচন কমিশন গঠনের লক্ষ্যে মহামান্য রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সাথে সংলাপে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ। অদ্য ৫ জানুয়ারি, বুধবার সন্ধ্যা ৬টায় এ সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নানের নেতৃত্বে ০৭ (সাত) সদস্যের প্রতিনিধি দল সংলাপে অংশগ্রহণ করেন। সদস্যরা হলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব আল্লামা এম. এ মতিন, প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ আল্লামা ড. আফজাল হোসাইন, পীরে ত্বরিকত আল্লামা সৈয়দ মুসিহুদ্দৌলা, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অধ্যক্ষ স.উ.ম আবদুস সামাদ ও সাংগঠনিক সচিব সৈয়দ মুজাফফর আহমদ মুজাদ্দেদী প্রমুখ।

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য কার্যকরি নির্বাচনের জন্য স্বাধীন নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রতি জোর দাবী জানান। মহামান্য রাষ্ট্রপতির সাথে আলোচনাকালে নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের পক্ষ থেকে ৪ দফা লিখিত প্রস্তাবনা পেশ করা হয়। প্রস্তাবনা গুলো হলো-

১। অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের লক্ষ্যে সংবিধানের ১১৮(১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন নিয়োগের জন্য বিগত ৫০ বছরে কোনো সরকারই আইন করেনি। আইনের সাংবিধানিক ভিত্তি একটি কাঠামো ও বাধ্যবাধকতার নির্দেশ করে। ইসলামী ফ্রন্ট নির্বাচন কমিশন গঠন সংক্রান্ত স্থায়ী সমাধানের জন্য বিদ্যমান সাংবিধানিক ধারা সংশোধন করে স্বাধীন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করার প্রস্তাব করেন। (২) নির্বাচনকালীন সময়ে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়গুলো যেমন: স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, সংস্থাপন মন্ত্রণালয় ও অর্থ মন্ত্রণালয় স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে ন্যাস্ত থাকবে। (৩) অনির্বাচিত তত্বাবধায়ক সরকার বা নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য স্থায়ী কোনো সমাধান নয়, যা ইতোমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে। এ বিষয়ে পার্শ্ববর্তীদেশসহ উন্নত দেশগুলোর মডেল অনুসরণ করা প্রয়োজন। (৪) উপরোক্ত প্রস্তাবনা পেশ পূর্বক দেশের প্রখ্যাত ৫জন বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে নির্বাচন কমিশন গঠনেরও জন্য বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের পক্ষ থেকে করার প্রস্তাব করা হয়।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম