1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
লালমনিরহাটে ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাইজেশন সেবার উদ্বোধন। - দৈনিক জনতার বার্তা
সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০১:১৩ অপরাহ্ন

লালমনিরহাটে ইউনিয়ন পরিষদের ডিজিটাইজেশন সেবার উদ্বোধন।

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ১২ জুন, ২০২২

 

লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার পলাশী ইউনিয়ন পরিষদে আলোচনা সভা ও কেক কাটার মাধ্যমে আধুনিক সেবা ডিজিটাইজেশনের শুভ উদ্বোধন করা হয়।

শনিবার (১১ জুন) দুপুরে পলাশী ইউনিয়ন পরিষদ হলরুমে রাইয়্যান বিজনেস ডেভলপমেন্ট কর্তৃক উক্ত কর্মসূচির উদ্বোধন করা হয়।

পলাশী ইউপি চেয়ারম্যান আলাউল ইসলাম ফাতেমীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন,রাইয়্যান বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এর পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ফারুক হোসেন,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,পলাশী ইউপি পরিষদের সকল সদস্য ও সদস্যাগন।
রাইয়্যান বিজনেস প্রশাসনিক কর্মকর্তা মোস্তাফিজার রহমানের সঞ্চালনায় আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মনোয়ার হোসেন।

উল্লেখ্য- রাষ্ট্রের প্রায় সিংহভাগ মানুষ গ্রাম ও প্রান্তিক পর্যায়ে বসবাস করছে, আবার কিছু অংশ বিদেশে অবস্থান করছে। ফলে স্থানীয় সরকারের অধীনে সকল (ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা, উপজেলা পরিষদ, জেলা পরিষদ) থেকে জনগণের অনেক গুরুত্বপূর্ণ সনদ গ্রহণের প্রয়োজন হয়। গ্রাম ও প্রান্তিক পর্যায়ে এখন পর্যন্ত ডিজিটাল সেবার তেমন ছোঁয়া পড়েনি। এরই ধারাবাহিকতায় অরেঞ্জ বিজনেস ডেভেলপমেন্ট বাংলাদেশ লিমিটেড (অরেঞ্জ বিডি) ও ক্লাইড টেকনোলজিস লিমিটেড এর যৌথ উদ্যোগে রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে স্থানীয় সরকার পর্যায়ে নাগরিকদের বিভিন্ন সনদসমুহের ডিজিটাইজেশনের জন্য সনদসেবা/ LGD SHEBA সফটওয়্যার তৈরি করেছে। ফলে নাগরিকরা ঘরে বসেই বিশ্বের যে কোন প্রান্ত থেকে সনদ পেয়ে যাচ্ছে। এর মাধ্যমে কমছে নাগরিক ভোগান্তি, অর্থ ও সময়ের অপচয়।
নাগরিকের সকল তথ্য, জাতীয় পরিচয় পত্র ও জন্ম নিবন্ধন এর মাধ্যমে যাচাই প্রক্রিয়া এই প্লাটফর্মে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। ফলে যারা এই দেশের নাগরিক নন বা অনুপ্রবেশকারীদেরকেও সনদ প্রাপ্তি থেকে রহিত করা যাবে খুব সহজেই।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আরোও বলেন,ইতিমধ্যে আমাদের তৈর সনদসেবা (LGD SHEBA)সফটওয়্যার ব্যবহার করে ১৫০ টি ইউনিয়ন এবং ০৩ টি পৌরসভা তাদের স্ব স্ব উদ্যোগে নাগরিক সেবা অনলাইন এর মাধ্যমে প্রদান করেছে। ইতিমধ্যে দেশের বেশিরভাগ উদ্যোক্তা,জনপ্রতিনিধি এবং কর্মকর্তাদের মাঝে বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ এবং উৎসাহের সৃষ্টি হওয়ায় স্হানীয় সরকার পর্যায়ের বিভিন্ন স্তর হতে নাগরিক সেবাসমূহ ডিজিটাইজেশনের অনুরোধ উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় সারাদেশের স্হানীয় সরকার বিভাগের অধীনে (ইউনিয়ন পরিষদ,পৌরসভা,উপজেলা পরিষদ,জেলা পরিষদ) সকল উদ্যোক্তাদেরকে এই সফটওয়্যার ব্যবহার করা যাবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম