1. ahekram2006@gmail.com : ah ekram : ah ekram
  2. asadmd7195@gmail.com : JB Admin : JB Admin
  3. janatarbartabd@gmail.com : jb editor : jb editor
ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য মহেশপুরে ১৭১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার। - দৈনিক জনতার বার্তা
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ১০:৩৮ অপরাহ্ন
সর্বশেষ সংবাদ

ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য মহেশপুরে ১৭১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার।

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : সোমবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২২

আবু সুফিয়ান শান্তি,ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় মহান ২১শে ফেব্রুয়ারি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য ১৭১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার।
মহেশপুর উপজেলার ২৩৫ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১৭১ টিতে ভাষা শহীদদের স্মরণে নেই কোন শহীদ মিনার।
প্রতি বছর ভাষার মাস এলেই এনিয়ে কথা হয়,আলাপ আলোচনা হয় কিন্তুু কার্যকরি কোন পদক্ষেপের অভাবে আর বাস্তবায়ন হয় না।
১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে প্রতিবছর ২১শে ফেব্রুয়ারি শহীদ দিবস পালন করা হতো।
বর্তমানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবেও পালন করা হয়।সরকারিভাবে প্রতিবছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ২১শে ফেব্রুয়ারি পালনের নির্দেশনা দেওয়া হয়।
তাছাড়া শিক্ষার্থীরা ২১শে ফেব্রুয়ারি পালনেও অভ্যস্ত। এত কিছুর পরেও উপজেলার ১৭১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভাষা শহীদদের প্রতি সম্মান জানাতে আজও নির্মিত হয়নি কোনো শহীদ মিনার।
মাত্র ৬৪ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার আছে।এরমধ্যে আবার অনেক শহীদ মিনার অসচ্ছ,অবহেলা ও জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে।উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে,মহেশপুরে ১৫২ টির মধ্যে সরকারি প্রাইমারি স্কুলের মাত্র ২২ টিতে শহীদ মিনার রয়েছে।উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাগেছে,উপজেলার মাধ্যমিক ও নিম্ন মাধ্যমিক স্কুল আছে ৮৩ টি।এরমধ্যে শহীদ মিনার আছে ৪২ টিতে।২৫ টি মাদ্রাসার কোনটিতে শহীদ মিনার নেই।১০ টি কলেজের মধ্যে মহেশপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজ বাদে ৯টিতে শহীদ মিনার আছে।সবমিলিয়ে ২৩৫ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে মাত্র ৬৪ টিতে শহীদ মিনার আছে।এব্যপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আমজাদ হোসেন বলেন,যেসকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নেই সে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য উপর থেকে নির্দেশনা আসছে পরিষদে এটা ওঠানো হয়েছে।পরিষদ থেকে এটা করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।তিনি আরো জানান,এব্যাপারে আমরা জোরালো কোন পদক্ষেপ পাই নাই।সে কারনে আমরা কোন সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে পারিনি।এব্যপারে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু হাসান বলেন,সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য সরকারি নির্দেশনা আছে কিন্তুু বরাদ্দ নেই।তবে আমরা স্থানীয় চেয়ারম্যানদের সহযোগিতায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য উদ্দ্যোগ নিয়েছি।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© ২০২০ সমস্ত অধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক জনতার বার্তা বিডি পরিবার
কারিগরি সহায়তায় রাফিউল ইসলাম